চট্টগ্রামের বিখ্যাত গরুর মাংসের কালা ভুনা | Gorur Mangsho Bhuna Recipe

kalavuna-recipe-fatema-munny

কুরবানীর ঈদের দিন খাবার টেবিলে চাই স্পেশাল রান্না। চট্টগ্রামের বিখ্যাত গরুর মাংসের কালা ভুনা নামটার প্রতি ভোজন পিপাসুদের একটা বিরাট দুর্বলতা আছে। জিবে জল চলে আসার মতোই একটি খাবার। ঢাকার নানান হোটেলে খাওয়ার অভিজ্ঞতা আছে যাদের তাদের কাছে কালা ভুনা ভালোই পছন্দের। অসম্ভব মজাদার এই খাবারটির জন্ম স্থান চট্টগ্রাম, চট্টগ্রামের কালো ভুনা স্বাদে- ঐতিহ্যে অন্য সবার চাইতে আলাদা। শোনা গেছে সেখানে শুধুমাত্র এই কালা ভুনা রান্নার জন্য স্পেশাল বাবুর্চিও আছে, যাদের ডাক পড়ে বাইরে বিভিন্ন জায়গায়! আর চট্টগ্রামের বিয়ে বাড়িতে খাবারের মেনু তো কালো ভুনা ছাড়া কল্পনাই করা যায়না। কালা ভুনার এত সুনাম দেখে নিশ্চয়ই এখন ভাবছেন কিভাবে তা রান্না করা হয়? অনেকে হয়তো মনে করেন কত কিছুই না করতে হয় এই মাংস রান্না করতে। কিন্তু সত্যি কথা বলতে কি, সবকিছু হাতের কাছে থাকলে, এই মাংসটা রান্না করা কোনো ব্যাপারই না। আমি চেষ্টা করেছি খুব সহজ উপায়ে একদম অথেন্টিক কালাভুনা রান্নার রেসিপিটি আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। এবারের কুরবানীর ঈদে ঝটপট তৈরি করে ফেলুন বাড়িতেই চট্টগ্রামের বিখ্যাত গরুর মাংসের কালা ভুনা।

ঊপকরন:

প্রথম ধাপ: কালোভুনা রান্না করতে এই উপকরন গুলো লাগবে

  • গরুর মাংস ২ কেজি (হাড়, চর্বি সব থাকতে হবে)
  • পিঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ
  • কাঁচা পেঁয়াজ: মেরিনেশনে ১ কাপ, রান্না শেষে ১ কাপ
  • আদা বাটা ১ টেবিল চামচ
  • রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ
  • গোল মরিচ ১০/১২ টি
  • কাবাব চিনি ৬/৭ টি
  • ৫/৬ টি ছোটো এলাচ
  • ৩ টি তেজপাতা
  • লং ৬/৭ টি
  • দারুচিনি আনুমানিক ১০/১২ সেঃমিঃ
  • বড় এলাচ ৩ টি
  • স্টার এনিস মসলা ৩/৪ টি
  • মরিচের গুঁড়ি ২ টেবিল চামচ
  • হলুদের গুঁড়ি ০.৫ চা চামচ
  • লবণ ১ টেবিল চামচ
  • ধনে গুঁড়ি ২ টেবিল চামচ
  • রান্নার তেল ১ কাপ পরিমাণ (পেঁয়াজ বেরেস্তার তেলটাই নিতে হবে)
  • গোল মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামচ
  • ১ টা জয়ফলের গুঁড়ি (না ভেজে)
  • আনুমানিক ৩/৪ গ্রাম জয়ত্রি
  • ভাজা জিরার গুঁড়ি ০.৫ চা চামচ
  • গরম মসলার গুঁড়ি: রান্নার সময় ০.৫ চা চামচ, রান্নার শেষে ০.৫ চা চামচ
  • রাধুনী মসলার গুঁড়ি: রান্নার সময় ০.৫ চা চামচ, রান্নার শেষে ০.৫ চা চামচ
  • টক দই ১ কাপ

রান্নার পদ্ধতি :

প্রথম ধাপ: মাংস কেটে ধুয়ে, পানি ঝরিয়ে সব গুঁড়ামসলা, লবণ, বাটামসলা আর সরিষার তেল দিয়ে মাখিয়ে নিন। এখন রান্নার পাত্রে তিন টেবিল-চামচ তেল গরম করে, অল্প পেঁয়াজকুচি বাদামি রং করে ভেজে আস্ত গরম মসলাগুলো দিয়ে দিন। ভাজা হলে মাংস দিয়ে ১০ মিনিট কষিয়ে তিন কাপ গরম পানি যোগ করে নেড়ে ঢেকে সিদ্ধ হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন। মাঝে মাঝে নেড়ে দিন যেন পাতিলের তলায় লেগে না যায়। মাংস অর্ধেক হয়ে গেলে টক দই দিন নেড়ে দিন । মাংস সিদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে গেলে নামিয়ে নিন।

দ্বিতীয় ধাপ: অপর একটি কড়াইতে এক কাপের মতো তেল গরম করে পেঁয়াজকুচি দিয়ে ভাজুন। পেঁয়াজ হালকা বাদামি রং হলে মাংসগুলো তুলে এই তেলে দিন। মাঝারি আঁচে মাংসগুলো ভাজুন। মাংসের রং কালো হয়ে এলে টালা জিরাগুঁড়া আর শুকনো মরিচ উপর দিয়ে ছড়িয়ে নামিয়ে ফেলুন। পোলাও, নানরুটি, পরোটার সঙ্গে সাজিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

বাগার দিতে এই উপকরন গুলো লাগবে :

  • সরিষার তেল ১ কাপ ০.৫ কাপ
  • পেঁয়াজ কুচি রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ
  • আদা কুচি ১ টেবিল চামচ
  • ১০/১২ টি শুকনো মরিচ

Recommended Product - Tok Doi

sour-doi-diabetic-doi-tok-doi

৳ 300.00Add to cart

Sharing is caring!

Comments (0)

Leave a Reply